কমিটি অনুমোদনের ২৪ ঘন্টা না যেতেই বাগেরহাট বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ ২ নেতার পদত্যাগে তীব্র প্রতিক্রিয়া

মে ৬, ২০১৭

আপনি দেখছেন: দেশের খবর >> জাতীয়, প্রধান খবর, বাগেরহাট >> কমিটি অনুমোদনের ২৪ ঘন্টা না যেতেই বাগেরহাট বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ ২ নেতার পদত্যাগে তীব্র প্রতিক্রিয়া

প্রতিনিধি, বাগেরহাট: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ঘোষিত কমিটি অনুমোদনের ২৪ ঘন্টা না যেতেই বাগেরহাটে বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ দুই নেতা পদত্যাগ করেছেন। শুক্রবার গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে পাঠানো পৃথক বার্তায় তারা নিজ নিজ পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা জানান। এরা হলেন, নবগঠিত বাগেরহাট জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও জেলা শ্রমিকদলের সভাপতি সরদার লিয়াকত আলী এবং জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও জেলা বিএনপির সদ্য ঘোষিত কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সুজাউদ্দিন মোল্লা (সুজন)।

এর আগে এম এ সালামকে সভাপতি এবং আলী রেজা বাবুকে সাধারণ সম্পাদক করে বাগেরহাট জেলা বিএনপির ১৫১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন করেছে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই কমিটি অনুমোদন করেছেন বলে বৃহস্পতিবার দলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

সংবাদ কর্মীদের কাছে পাঠানো পদত্যাগ প্রসঙ্গে সরদার লিয়াকত আলী উল্লেখ করেন, “নব গঠিত বাগেরহাট জেলা বিএনপির কমিটিতে আমাকে সহ-সভাপতি পদে রাখা হয়েছে। আমার দৃষ্টিতে কিছু অসাধু, অযোগ্য, অথর্ব, বিশ্বাসঘাতক, বেঈমান ব্যক্তিকে জেলা বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখা হয়েছে বিধায় উক্ত কমিটির সহ-সভাপতি পদ থেকে পদত্যাগ করলাম।”

অপরদিকে, বাগেরহাট জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সুজাউদ্দিন মোল্লা (সুজন) উল্লেখ করেন, “সম্মান না দিলে ক্ষতি নাই, কিন্তু অসম্মান করার এখতিয়ার কাউকে দেওয়া হয়নি। আমার নাম জেলা বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক দেখে আমি হতবাক। যেহেতু ম্যাডাম অনুমোদিত তাই কিছু বলব না। আমি সদ্য গঠিত জেলা বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে পদত্যাগ করলাম।”

এদিকে, সদ্য ঘোষিত জেলা বিএনপির এ কমিটি নিয়ে জেলাব্যাপী বিএনপি ও তার অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী, সমর্থকদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। পক্ষে-বিপক্ষে আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে। তবে এ ব্যাপারে দায়িত্বশীল কেউ এখনি মুখ খুলতে রাজি হননি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *