নওগাঁর আত্রাইয়ে পুলিশের নির্যাতনে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ

এপ্রিল ১১, ২০১৭

আপনি দেখছেন: দেশের খবর >> অধিকার, নওগাঁ, স্থানীয় শীর্ষ >> নওগাঁর আত্রাইয়ে পুলিশের নির্যাতনে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ

একেএম কামাল উদ্দিন টগর, আত্রাই (নওগাঁ): নওগাঁর আত্রাই উপজেলার পারকাসুন্দি গ্রামে রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশের নির্যাতনে জালাল হোসেন (৩৮) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে নিহত পরিবারের লোকজন। পুলিশ অভিযোগ অস্বীকার করে হার্ট এ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে।

এদিকে ঘটনা জানাজানি হলে পরদিন সোমবার দুপুরে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ও আত্রাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোকলেছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় নিহতের পরিবারকে ঘটনা তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন। নিহত জালাল উদ্দিন জেলার রানীনগর উপজেলার মৃত ছলিম উদ্দিনের ছেলে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, রোববার সকালে রানীনগর উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রাম থেকে অসুস্থ মামা আসকানকে দেখতে আত্রাই উপজেলার দক্ষিণ পারকাসুন্দি গ্রামে গিয়েছিলেন জালাল হোসেন। পরিবারের দাবি গভীর রাতে ঘুম থেকে ডেকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে পুলিশ। এরপর জাতীয় পরিচয়পত্র আনতে বলে মামি জোসনা বানুকে। জোসনা বানু অন্য ঘরে জাতীয় পরিচয়পত্র আনতে গেলে জালাল হোসেনকে কোন কারণ ছাড়াই বেদম মারধর শুরু করে পুলিশ। এরপর মারধরের চিৎকার শুনে জোসনা বানু ঘরে এসে দেখে জালালকে মেরে মেঝেতে শুয়ে রাখা হয়েছে। সাথে সাথে জোসনা বেগম চিৎকার শুরু করলে গ্রামবাসীরা এগিয়ে আসে।

গ্রামবাসীরা জানান, জালাল হোসেনের বুকে ও পিঠে আঘাতের দাগ রয়েছে।

এ বিষয়ে আজ সোমবার বিকালে আত্রাই উপজেলার পাঁচুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আফছার আলী বলেন, শুধু এটিই নয়, মাঝে মধ্যেই গ্রামবাসীকে নেশাদ্রব্য দিয়ে ফাঁসিয়ে চাঁদা দাবি করে পুলিশ।

এদিকে সোমবার বিকালে আত্রাই থানার ওসি বদরুদ্দোজা সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, পুলিশ আসামি ধরতে গিয়েছিল সেখানে। আর ওই যুবক পুলিশী নির্যাতনে নয়, মারা গেছেন হার্ট এ্যাটাকে। এ ঘটনায় থানায় কোন মামলা হয়নি বলেও জানান ওসি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *