বাজেটে আয় বাড়ানোর উদ্যোগ ইতিবাচক, তবে জরুরি সুশাসন নিশ্চিত করা: বাজেট আলোচনায় বক্তারা

জুন ২০, ২০১৭

আপনি দেখছেন: দেশের খবর >> উন্নয়ন, জাতীয়, ঢাকা, প্রধান খবর >> বাজেটে আয় বাড়ানোর উদ্যোগ ইতিবাচক, তবে জরুরি সুশাসন নিশ্চিত করা: বাজেট আলোচনায় বক্তারা

বর্তমান বাজেটে নিজস্ব সামর্থ্যে আয় বাড়ানোর যে উদ্যোগ তাকে ইতিবাচক বলেছেন অর্থনীতিবিদ ও অর্থনীতিবিষয়ক গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বরা। প্রস্তাবিত বাজেটের আর্থিক ব্যবস্থাপনা বিষয়ে তারা বলেছেন, এ উদ্যোগ সফল করতে প্রশাসনিক কাঠামো শক্তিশালী ও সুশাসন নিশ্চিত করা জরুরি।

মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে গণমাধ্যম বিষয়ক প্রতিষ্ঠান সমষ্টি আয়োজিত সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন।

আর্থিক ব্যবস্থাপনা বিষয়ক বাজেট আলোচনায় বক্তারা।

সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন দি ইন্ডিপেডেন্ট পত্রিকার বার্তা সম্পাদক মীর মোস্তাফিজুর রহমান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টেলিভিশন, ফিল্ম ও  ফটোগ্রাফি বিভাগের অধ্যাপক ড. এজেএমম শফিউল আলম ভূইয়ার সঞ্চালনায় সেমিনারে প্রধান আলোচক ছিলেন একাত্তর টিভির বার্তা পরিচালক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি) এর রিসার্চ ফেলো ড. তৌফিকুল ইসলাম খান এবং দি বাংলাদেশ পোস্ট এর  উপব্যবস্থাপনা সম্পাদক গোলাম শাহানী।

সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা বলেন, অনেকে বাজেটের আকার নিয়ে সমালোচনা করেন। তবে এটি সত্যি আমাদের অনেক সক্ষমতা বেড়েছে। বাজেটপ্রক্রিয়ায় জনঅংশগ্রহণ আরো বাড়ানোর প্রতি মত দেন তিনি।

সেমিনারে ড. তৌফিকুল ইসলাম খান বলেন, একটি আধুনিক ও অভিন্ন ভ্যাট আইন দীর্ঘদিন ধরে প্রত্যাশিত ছিল। এবারের বাজেটে অভিন্ন ভ্যাট আইনের প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষে ধাপে ধাপে এর বাস্তবায়ন করা উচিত। তিনি ব্যাংকিং খাতের বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা দূর করতে একটি ব্যাংকিং কমিশন গঠনের সুপারিশ করেন। তিনি আরও বলেন, অবকাঠামোসহ সামাজিক সুরক্ষাখাতে বাজেট বরাদ্দ বৃদ্ধি ইতিবাচক, তবে এসব বাস্তবায়নে সুশাসন নিশ্চিত করা দরকার।

রাজস্ব কৌশল ও আহরণে সরকারের দূরদর্শিতা থাকতে হবে মন্তব্য করে গোলাম শাহানী বলেন, অভিন্ন ভ্যাট আরোপ আবাসন খাতসহ অনেক খাতে চাপ বাড়াবে।

বাজেট নিয়ে নেতিবাচক আলোচনা অনেকটা ঐতিহ্যের মতো হয়ে গেছে মন্তব্য করে সাংবাদিক ও সমষ্টির পরিচালক মীর মাসরুর জামান বলেন, এতে বাজেটের ইতিবাচক উপাদান ও সুদূরপ্রসারী লক্ষ্যগুলো গৌণ হয়ে পড়ে। এবারের বাজেটে এরকম অনেক প্রস্তাব রয়েছে যেগুলো বাংলাদেশের দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়নের সঙ্গে সম্পর্কিত। আর্থিক ব্যবস্থাপনাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রের এরকম প্রস্তাবগুলোর উপর বিশেষ মনোযোগ দিয়ে দক্ষতার সঙ্গে সেগুলোর বাস্তবায়ন জরুরি।
জিডিপির প্রবৃদ্ধির উচ্চহার ধারাবাহিক রয়েছে যেটা সরকারের আর্থিক নীতিমালার সুফল বলে মনে করেন ড. শফিউল আলম।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *