বারহাট্টার ইউএনওকে খুনের চেষ্টার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

মার্চ ৯, ২০১৫

আপনি দেখছেন: দেশের খবর >> অধিকার, অন্যান্য সংবাদ, নেত্রকোনা >> বারহাট্টার ইউএনওকে খুনের চেষ্টার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

নেত্রকোনা থেকে মীর মনিরুজ্জামান: সরকারি কর্মচারীকে কর্তব্য পালনে বাধা দেওয়ার উদ্দেশ্যে খুনের উদ্যোগ ও ক্ষতিকর কাজ করার অপরাধে নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার বারহাট্টা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী মো. সাখাওয়াত হোসেনকে সোমবার  দুপুরে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর পুলিশ পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করলে আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, ১০ ফেব্রুয়ারি বারহাট্টা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটিতে যোগদানের জন্য যাওয়ার পথে বারহাট্টা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে চেয়ারম্যান কাজী মো. সাখাওয়াত হোসেন তার লোকজন নিয়ে ইউএনও’র গাড়ির গতিরোধ করে একটি প্রকল্পের কাজের ফাইলের ব্যাপারে জানতে চান।

তখন ইউএনও ফাইলটি প্রকল্প কর্মকর্তার কাছে আছে ও মিটিং থেকে এসে কাজ করে দেবেন বলে জানালে চেয়ারম্যান ইউএনওকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ, পেট্রলবোমা দিয়ে মারার জন্য আক্রমণ ও গাড়ি ভাংচুরের চেষ্টা করে। এসময় গাড়ি চালক বাঁধা দিলে তাকেও মারপিট করার হুমকি দেওয়া হয়। পরে ইউএনও বারহাট্রা থানার ওসিকে ফোন করলে ঘটনাস্থলে দ্রুত পুলিশ পৌঁছলে চেয়ারম্যান তার লোকজন নিয়ে অজ্ঞাতস্থানে চলে যায়।

এ ঘটনায় ওই দিনই ইউএনও’র গাড়ি চালক মো. আব্দুল খালেক বাদি হয়ে চেয়ারম্যান কাজী মো. সাখাওয়াত হোসেনকে প্রধান আসামি করে পাঁচ জনের বিরুদ্ধে বারহাট্রা থানায় ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করে।

 

Comments are closed.