মধুপুরে বেতনবৃদ্ধির দাবিতে রাবার বাগানের পিচরেট শ্রমিকদের ধর্মঘট

আব্দুল্লাহ আবু এহসান, মধুপুর (টাঙ্গাইল): টাঙ্গাইলের মধুপুরে বেতনভাতা বৃদ্ধির দাবিতে পীরগাছা রাবার বাগানের পিচরেট শ্রমিকরা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। দাবি দাওয়া না মানা পর্যন্ত অনির্দিষ্ট কালের জন্য ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তারা।

modhupur-20-11-2016
মধুপুরে বেতনবৃদ্ধির দাবিতে রাবার বাগানের পিচরেট শ্রমিকদের ধর্মঘট ও বিক্ষোভ।

রবিবার পীরগাছা রাবার বাগানের পিচরেট শ্রমিক ও বাগানের কর্মকর্তা, কর্মচারিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, নিয়মিত শ্রমিকের পাশাপাশি চুক্তিভিত্তিক পিচরেট শ্রমিকরাও রাবার বাগান থেকে কষ আহরণ করে থাকে। ফলে বাগানে দুই ধরনের শ্রমিকরাই কষ আহরণ করে। পিচরেট শ্রমিকরা বেতন পায় কাজের উপর ভিত্তি করে। চুক্তিভিত্তিক এক কেজি কষ আহরণ করে পায় সাত টাকা। আর নিয়মিত শ্রমিকরা মাসিক বেতন পায় ৮ হাজার টাকার মত। সাথে অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাও আছে।

পিচরেট শ্রমিকরা নিয়মিত শ্রমিকদের সমপরিমাণ মাসিক বেতন দাবি করেছে। অথবা দৈনিক ৪৫০ টাকা হারে বেতন চায়। এ দাবি না মানা হলে তারা ধর্মঘট চালিয়ে যাবে বলে জানায়। রবিবার পিচরেট শ্রমিকরা এ দাবি আদায়ের জন্য বাগান এলাকায় বিক্ষোভ-মিছিল ও সমাবেশ করেছে। এরপর এ দাবির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে মধুপুর জোনের কমলাপুর, চাঁদপুর, কর্ণজোরা ও পীরগাছা বাগানের প্রায় ১৪শ পিচরেট শ্রমিক এ ধর্মঘট ও বিক্ষোভ-মিছিল অব্যাহত রাখবে বলে জানায়।

এ ব্যাপারে পীরগাছা রাবার বাগানের পিচরেট শ্রমিক ইউনিয়নের (রেজিঃ নং ৪৪১৯) সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান জানান, আমাদেরকে সাত টাকা কেজি আহরিত কষের মুজুরি দেয়। সিজনের সময় আমরা দৈনিক একজন শ্রমিক ৩০-৪০ কেজি কষ বাগান থেকে আহরণ করতে পারি। এতে আমরা একজন শ্রমিক দৈনিক ২১০ থেকে ২৮০ টাকা পাই। আবার অফ সিজেনের সময় কষ আহরণ আরো কম হয়। এ মুজুরি দিয়ে আমাদের সংসার চলে না। আমরা শ্রম অধিকার আইন মতে বেতন চাই। বাগানের লাভ-ক্ষতি আমাদের দ্বারা হয়। তাহলে আমরা ন্যায্য মুজুরি থেকে বঞ্চিত কেন? আমাদের এ জোনে ১৪শ শ্রমিক এ দাবির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে ধর্মঘট অব্যাহত রাখবে বলে তিনি জানান।

পীরগাছা রাবার বাগানের পিচরেট শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মীর আলী আকবর জানান, নিয়মিত শ্রমিকদের সমান আমাদের বেতন দিতে হবে। আমরা সাপ, মশা, জোঁক ও বিছার কামড় সহ্য করে বাগানে কাজ করি। ভোর ৪টা থেকে ১টা পর্যন্ত ডিউটি করে ডাল-ভাত কেনার বেতন পাই না। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে ৪৫০ টাকা দৈনিক ভিত্তিতে অথবা মাসে ৮ হাজার টাকা বেতনের দাবি আমাদের। এ দাবি না মানলে মধুপুর জোনের পিচরেট শ্রমিকরা আন্দোলন ও ধর্মঘট অব্যাহত রাখবে বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে পীরগাছা রাবার বাগানের ব্যবস্থাপক মিয়া তোফায়েল আহামেদ জানান, তারা নিয়মিত শ্রমিক নয়। তাদের কাজের অনুপাতে বেতন দেওয়া হয়। এতে তারা কাজ ফাঁকি দিতে পারে না। আন্দোলন ও ধর্মঘটের ব্যাপারে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *