স্ত্রীকে কুপিয়ে স্বামীর আত্মহত্যা

জুন ১২, ২০১৭

আপনি দেখছেন: দেশের খবর >> নারী ও শিশু, সাতক্ষীরা, স্থানীয় শীর্ষ >> স্ত্রীকে কুপিয়ে স্বামীর আত্মহত্যা

আমিনা বিলকিস ময়না, সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরার তালায় আক্তার আলী মোড়ল তার স্ত্রী ইরানি বেগমকে ঘুমন্ত অবস্থায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে নিজে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নের ঘোনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মারাত্মক আহত ইরানি বেগমকে (৩২) প্রথমে খুলনায় ও পরে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

নিহত আক্তার আলী মোড়ল (৪০) ঘোনা গ্রামের গহর আলি মোড়লের ছেলে।

ইসলামকাটি ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য নিরোজা ইয়াসমিন জুলি বলেন, স্ট্রোক করার কারণে আক্তার আলী বেশ কিছুদিন যাবত প্যারালাইসড ছিলেন। অসুস্থতার কারণে একরকম বেকার হয়ে পড়া আক্তারের সাথে ইরানির নিয়মিত ঝঞ্ঝাট লেগেই থাকতো। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তাদের জন্য ভিজিডি-ভিজিএফ কার্ডের ব্যবস্থা করেন সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য।

পরিবারের সাথে কথা বলে জুলি জানতে পারেন, রোববার তাদের সারাদিন নানা বিষয়ে বাকবিতণ্ডা চলে। রাতে ইরানির ক্ষত-বিক্ষত রক্তাক্ত শরীর ও স্বামী আক্তারের দড়িতে ঝোলানো মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

জুলি আরও জানান, আক্তার মোড়ল দুই কন্যা সন্তানের জনক এবং তারা কেউই বাসায় ছিল না। এছাড়া আক্তার-ইরানির বাড়িতে তিনটি কুকুর ছিল যারা ওই এলাকায় পাহারা দিত। তিনটি কুকুরই ঘটনার পর ঘুমিয়ে আছে, সেগুলো ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারছে না। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে পুরো ঘটনা নিয়ে এক ধরনের সন্দেহ তৈরি হয়েছে।

তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান হাফিজুর রহমান জানান, রোববার রাতে আক্তার আলি মোড়ল ইরানি বেগমকে ঘুমন্ত অবস্থায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেন। জখম করার পর নিজে বাড়ির সামনে একটি আমগাছে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। স্ত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাকে তালা হাসপাতালে পাঠান।  অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। ওসি আরও জানান, পুলিশ আক্তার মোড়লের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *