বাংলা বর্ষবরণে দেশব্যাপী চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

কিশোরগঞ্জ থেকে মোস্তফা কামাল : মাত্র সপ্তাহখনেক বাকি নতুন বাংলা নববর্ষের। বরাবরের মত এবারো নববর্ষ বরণে কিশোরগঞ্জে চলছে ব্যাপক প্রস্ততি। জেলা প্রশাসন, আমাদের কিশোরগঞ্জ, গণ-একতা কেন্দ্রসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন মঙ্গল শোভাযাত্রা, র‌্যালি, দই-চিড়া উৎসব, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা আনুষ্ঠানিকতায় নববর্ষকে বরণ করে থাকে।

Kishoreganj (New Year Properation)-07-04-15
শহরের পুরাতন স্টেডিয়ামে আমাদের কিশোরগঞ্জ সংগঠনের উদ্যোগে চলছে মঙ্গল শোভাযাত্রার যাবতীয় প্রস্তুতি। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী রংতুলি নিয়ে তৈরি করছে বিভিন্ন প্রাণীর মুখোশ আর প্লাকার্ড। কিশোরগঞ্জে যত রকম বর্ষবরণ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়, এর মধ্যে সবচেয়ে আকর্ষণীয় হয় আমাদের কিশোরগঞ্জ সংগঠনের মঙ্গল শোভাযাত্রা। এতে ছাত্র-ছাত্রীসহ নানা বয়সের মানুষ অংশগ্রহণ করে থাকে। স্টেডিয়াম থেকে শুরু হয়ে শোভাযাত্রাটি সারা শহর প্রদক্ষিণ করে।

এখন চলছে সেই বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রারই প্রস্তুতিপর্ব। আর এসব কাজ তদারক করছেন আমাদের কিশোরগঞ্জ সংগঠনের সাইদুল হক শেখর, মাহমুদ পারভেজ, ম.ম জুয়েল, চারু ও কারু শিল্পী মো. সালেহ, সোহেল, জিয়া, লিটনসহ আরো অনেকে। নববর্ষ উপলক্ষে বিভিন্ন গ্রামীণ খেলা, গ্রামীণ মেলা, পালাগান, নাট্যানুষ্ঠানসহ আরো নানা আয়োজন থাকে। প্রতিটি অনুষ্ঠানেই প্রচুর লোক সমাগম হয়।

বরিশালে মঙ্গল শোভাযাত্রার শেষ প্রস্তুতি
এম.মিরাজ হোসাইন,বরিশাল ॥ আর মাত্র কয়েকদিন পরেই পহেলা বৈশাখ। বাঙলা নববর্ষের প্রথম দিনটি বরণে বরিশাল চারুকলা শিল্পীদের উদ্যোগে মঙ্গল শোভাযাত্রা আয়োজনের শেষ প্রস্তুতি চলছে পুরোদমে। সংশ্লি¬ষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নগরীর সদর রোডের চারুকলার অস্থায়ী কার্যালয়ে চারুকলা বরিশালের আয়োজনে ২৪তম মঙ্গল শোভাযাত্রা আয়োজনের শেষ প্রস্তুতিতে ব্যস্ত সময় পাড় করছেন চারুশিল্পীরা।

Barisal Photo=01

পহেলা বৈশাখের দিন বরিশাল ব্রজমোহন বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে সকাল আটটায় রাখি পড়িয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রার উদ্বোধন করবেন প্রবীণ সাংস্কৃতি ব্যক্তিত্ব মীর মুজতবা আলী। এরপর শোভাযাত্রাটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বরিশাল সিটি কলেজ প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হবে। শোভাযাত্রায় লোকজীবনের নানা প্রতীকের মাধ্যমে আবহমান বাংলার ঐতিহ্য ফুটিয়ে তোলা হবে। এছাড়া মঙ্গলশোভাযাত্রা শেষে বরিশাল সিটি কলেজে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনীসহ লোকজসংস্কৃতি প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। ১ ও ২ বৈশাখ সন্ধ্যায় আয়োজন করা হয়েছে কবিগান, বাউলগান, নৃত্যানুষ্ঠান, নাটকসহ নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের।