নালিতাবাড়ীতে জামাই খুন, বউ-শাশুড়ি আটক

শেরপুর থেকে হাকিম বাবুল: শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার উত্তর রানীগাঁও গ্রামে বৃহস্পতিবার ভোরে শ্বশুর বাড়িতে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে জামাই মামুনকে (২২)। নিহত মামুন পাশের বাঘবেড় খড়িয়াপাড়া গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে। এ ঘটনায় স্ত্রী রহিমা বেগম (১৮) ও শাশুড়ি আক্তারাকে আটক করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার জানায়, বুধবার রাত সাড়ে এগারোটার দিকে বাঘবেড় বাজারে সাহেব আলীর চায়ের দোকানে কাজ শেষে শ্বশুর বাড়িতে আসে জামাই মামুন। বৃহস্পতিবার ভোরে মামুনের সদ্যবিবাহিতা স্ত্রী রহিমা বেগম (১৬) চিৎকার দেয়। তার চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন এসে বিছানায় মামুনের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মামুনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

নালিতাবাড়ী থানার এসআই ফয়জুর রহমান জানান, নিহত মামুনের গলায় শ্বাসরোধের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়াও ঘর থেকে চার জোড়া স্যান্ডেল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে স্ত্রী রহিমা বেগম ও শাশুড়ি আক্তারাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, গত ২৪ এপ্রিল রহিমা বেগমের সাথে মামুনের বিয়ে হয়। এরপর থেকে মামুন শশুর বাড়িতে থাকত। রহস্যজনক কারণে তারা পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।