বাগেরহাটে ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও হামলা, আহত ১০

বাগেরহাট প্রতিনিধি: জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে চিতলমারীতে শনিবার ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও হামলায় ১০ জন আহত হয়েছে।

আহতদের কয়েকজনকে গুরুতর অবস্থায় চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের কাঠিপাড়া গ্রামের আমজাদ শিকদার ও বেলাল সরদারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। এরই জের ধরে সকালে বেলাল সরদার ও তার লোকজন  রামদা, লাঠি ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে  আমজাদ ও তার ভাই ইউনুস শিকদারের বাড়িতে হামলা চালায়।

Bagerhat Photo-2  (20-6-15)

আগুন নেভাতে চেষ্টা করছে এক নারী।

এ সময় দুটি ঘরে অগ্নিসংযোগ করা হলে বাড়িতে পুরুষ না থাকায় নারীরা বাধা দিতে এগিয়ে এলে তাদের উপড় হামলা চালানো হয়। এতে জেএসসি পরীক্ষার্থী রত্না আক্তার(১৪), শাহানারা বেগম(৫৫), মেহরুন বেগম(৪৫), হাফিজা বেগম(৪৭), ফুলজান বেগম(৫২), লিমা বেগম(৩২), ইউনুস শিকদারসহ(৬০) ১০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে  ইউনুস শিকদার, স্কুলছাত্রী রত্না আক্তার ও শাহানারা বেগমকে চিতলমারী স্বাস্থ্যকেন্দ্র্রে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য কাজী মাহাতাব হোসেন চান্নু জানান, বেলাল সরদার বহিরাগত সন্ত্রাসীদের ভাড়া করে এ হামলা চালায়।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. রাশেদ শেখ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠান।

এ ব্যাপারে চিতলমারী থানার ওসি মো. রবিউল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রনে।

বেলাল সরদার তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।