ন্যাশনাল সার্ভিসের চাকরি পেলেন কাউখালীর ৪৫০ যুবক

রবিউল হাসান রবিন, কাউখালী (পিরোজপুর): কাউখালীতে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির আওতায় ৪৫০ জন শিক্ষিত বেকার যুবকের হাতে আজ মঙ্গলবার নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হয়।

সকালে কাউখালী সরকারি বালক বিদ্যালয় মিলনায়তনে পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক এ কে এম শামিমুল হক ছিদ্দিকী তাদের নিয়োগপত্র দেন।

pirojpur DC hands over national service appointments
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক।

উপজেলা প্রশাসন ও যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আয়োজনে এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শহীদুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম আহসান কবির, পিরোজপুর যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. সেকেন্দার আলী হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট এম নুরুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দিলু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুজ্জমানা মিঠু,  সদর ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুর রশিদ মিল্টন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আলামিন বাকলাই, আবদুল লতিফ খসরু, প্রশিক্ষণার্থী মাহাফুজা খানমসহ অন্যরা।

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর জানায়, ন্যাশনাল সার্ভিসের আওতায় উপজেলার বাসিন্দাদের মধ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক  বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে ২২৮ জন, স্বাস্থ্য সেবায় ৭৭ জন, বিভিন্ন সেবাখাতে ৭০ জন, আত্মকর্মসংস্থানে ৭৫ জন প্রশিক্ষণ নিয়েছেন।

তিন মাস প্রশিক্ষণের সময় প্রতি কর্মদিবসে প্রশিক্ষণার্থীরা একশ করে টাকা পেয়েছেন। দুই বছর চাকরিকালে প্রতি মাসে ৬ হাজার টাকা করে বেতন পাবেন।

বেতনের সেই টাকা থেকে প্রত্যেকের ব্যাংক হিসেবে ২ হাজার টাকা রেখে দেওয়া হবে। মেয়াদ শেষে মোট ৪৮ হাজার টাকা একসঙ্গে দেওয়া হবে, যাতে পরবর্তীতে তারা নিজেদের উদ্যোগে স্বাবলম্বী হতে পারেন।

এজন্য প্রয়োজনে যুব উন্নয়ন কার্যালয় বা অন্য কোনও সংস্থা থেকে আরও কিছু টাকা তারা ঋণ নিতে পারবে বলে জানান যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আল-আমিন বাকলাই।

অনুষ্ঠানে জেলা  প্রশাসক এ কে এম শামিমুল হক ছিদ্দিকী বলেন, এরা এখন প্রশিক্ষিত ও যোগ্য মানবসম্পদ। এদের শক্তিকে কাজে লাগাতে হবে। দেশের যুবশক্তিকে দেশ গড়ার কাজে লাগাতে না পারলে উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত হবে না। ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির অবদান সেক্ষেত্রে হতে পারে সুদূরপ্রসারী।