ভাতার আশায় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী আয়শা!

শেরপুর থেকে রেজাউল করিম: দৃষ্টিহীনতার বোঝা নিয়ে জন্ম থেকেই যন্ত্রণা সইছে শেরপুরের শ্রীবরদী পৌর শহরের কলাকান্দা মহল্লার আবুল হোসেনের মেয়ে আয়শা আক্তার (১৬)। তার বাবা দিন আনে দিন খায়। তার মা ফুলমতি সংসারের ঘানি টানতে যায় অন্যের কাজে। আয়শা আক্তার জন্ম থেকেই দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী।

Aisha Akter

দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী আয়শা

মা বাবার আদর-অনাদরে বড় হয়েছে সে। এখন তার বিয়ের বয়স ঘনিয়ে আসছে। বাবা মা’র দুশ্চিন্তা ক্রমেই বাড়ছে । কীভাবে মেয়েটিকে একটি ছেলের হাতে তুলে দিবে সেই চিন্তা। আয়শা আক্তারকে কেউ একবার দেখলে মনে হবে কত যে মায়াময়ী। কিন্তু দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হওয়ায় অসচ্ছ্বল এ পরিবারটি পড়েছেন চরম বিপাকে।

সম্প্রতি এক সাক্ষাতে আয়শা আক্তারের বাবা আবুল হোসেন জানান, তার মেয়ের জন্য প্রতিবন্ধী ভাতা পেতে সমাজের বিত্তবান আর জনপ্রতিনিধিদের দুয়ারে দুয়ারে গিয়েছেন। অবশেষে উপজেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরে আবেদন করেন। কর্তৃপক্ষ তার জন্য ভাতা মঞ্জুরির তালিকাও করেছিলেন। অথচ আজো হয়নি তার নামে প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড। অসচ্ছ্বল এ পরিবারের প্রত্যাশা, আয়শা আক্তারের নামে প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড হলে কিছুটা হলেও অবসান হবে তার জীবন যন্ত্রণার।