খুলনায় ডাকাতের আঘাতে হাফেজ নিহত, বৃদ্ধাসহ আহত ২

খুলনা প্রতিনিধি: খুলনায় ডাকাতদের হাতুড়ী পেটায় হাফেজ মো. শামসুদ্দোহা (১৬) নামক একজন কিশোর নিহত হয়েছে। বুধবার ভোর রাতে নগরীর রূপসা স্ট্যান্ড রোড এলাকায় নিহতের নানা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাতদের হামলায় তার নানী খাদিজা বেগম (৭০) ও গৃহ পরিচারিকা রানী (৪৫) আহত হয়। আহতদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয়রা বিষয়টিকে ডাকাতি বললেও পুলিশ চোর বলে দাবি করছে।

khulna pic (1) 22.07.2015

নিহত কিশোর হাফেজ শামসুদ্দোহার ফাইল ছবি

খুলনা থানার এস.আই তাপস কুমার পাল জানান, বুধবার ভোর রাতের দিকে একদল সংঘবদ্ধ চোর নগরীর ৭০/৩ নং রূপসা স্ট্যান্ড রোডের আব্দুল জব্বারের বাড়িতে চুরি করতে যায়। ওই সময় শব্দে ঘুমন্ত নাতি হাফেজ মো. শামসুদ্দোহা টের পেলে তার মাথায় হাতুড়ী দিয়ে আঘাত করে। তার চিৎকারে বাড়ির অন্যরা জেগে উঠলে তার নানী ও কাজের বুয়াকেও বেধড়ক মারপিট করে চোরেরা পালিয়ে যায়। তবে বিষয়টি ডাকাতি নয় বলে দাবি করেন তিনি।

এ ব্যাপারে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি)’র মুখপাত্র শেখ মনিরুজ্জামান মিঠু জানান, আশংকাজনক অবস্থায় কিশোর শামসুদ্দোহাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নিহত কিশোর মো. শামসুদ্দোহা পবিত্র ক্বোরআনের হাফেজ। সে মাহে রমজানে তারাবি নামাজের ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করে। সে নগরীর গল্লামারী এলাকার গোলাম জাহেদ রহমানের ছেলে।