খাদ্যে বিষক্রিয়া, কাউখালীর এক পরিবারের ৮ জন হাসপাতলে

রবিউল হাসান রবিন, কাউখালী (পিরোজপুর): রাতের খাবার খেয়ে বিষক্রিয়ায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে পিরোজপুরের কাউখালীর একই পরিবারের আট সদস্য।

অসুস্থরা হলেন আ. মালেক দর্জি (৮৪), পিয়ারা বেগম (৩৫), মনোয়ারা বেগম (৬৫), মনিরুজ্জামান (৩৫), বেলায়েত (৪৫), উর্মি (২৫),শহীদ (৩০) এবং বাড়ির কাঠমিস্ত্রী সুভাষ চন্দ্র (৪০)।

জানা গেছে, সয়না রঘুনাথপুর ইউনিয়নের পূর্ব বেতকা গ্রামের দর্জিবাড়ির বাসিন্দা এ পরিবারের সদস্যরা শুক্রবার রাতে ভাত খেয়ে ঘুমানোর প্রস্তুতি নেবার সময় রাত সাড়ে ১০টার দিকে পরিবারের এক সদস্য হঠাৎ জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। তাকে চিকিৎসা দেবার সময় বাড়ির অন্য সদস্যরা অসুস্থ হয়ে পড়লে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাদের কাউখালী  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

স্বজনরা  জানায়, তাদের ধারণা বড়ির মালামাল চুরি করার জন্য কেউ ভাতের সাথে জ্ঞান হারানোর কেমিক্যাল মিশিয়ে দিতে পারে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ছিদ্দিকুর রহমান  জানান, খাদ্যে বিষক্রিয়া হলে বমি ও পাতলা পায়খানা হয়। কিন্ত এদের ক্ষেত্রে ‌এসব উপসর্গ নেই। তিনিও ঘুমের ওষুধ বা  কোন কেমিক্যাল মেশানোর আশংকা করেছেন। তবে এখনো কয়েকজন বিপদ মুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন তিনি।