সরকারি নির্দেশ অমান্য করে নাচোলে বৃত্তিপ্রাপ্তদের কাছ থেকে টিউশন ফি আদায়

প্রতিনিধি, নাচোল: সরকারি নির্দেশ অমান্য করে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টিউশন ফি আদায় করছে বেশ কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

প্রাথমিক ও জুনিয়র বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টিউশন ফি আদায় করা যাবে না এমন সরকারি নির্দেশনা থাকলেও তা মানছে না নাচোলের এসব স্কুল।

ঢাকাসহ অন্যান্য শিক্ষা বোর্ডের জারি করা নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রাথমিক ও জুনিয়রে মেধা এবং সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা বিনা বেতনে পড়ার সুযোগ পাবে। এতে আরো বলা হয়েছে- সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ও শিক্ষাবোর্ডের অধিভুক্ত কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মাসিক বেতন (টিউশন ফি) আদায় করতে পারবে না। নির্দেশনা অমান্যকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথাও বলা হয়েছে এই নির্দেশনায়।

এ বিষয়ে নাচোলের নামকরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এশিয়ান স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ইশাহাক আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার প্রতিষ্ঠানটি প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান বিধায় সরকারি নির্দেশনার মধ্যে এই প্রতিষ্ঠানটি পড়ে না।

নাচোল পাঠশালা একাডেমির অধ্যক্ষ শাহাদাৎ হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, মেধাবী শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি আদায়ের ব্যাপারে কিছুটা ছাড় দেওয়া হয়। তবে প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের ওপর যদি এমন সরকারি নির্দেশনা থাকে তবে আগামীতে সেটা নেওয়া বন্ধ করা হবে।

খুরশেদ মোল্লা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, মেধাবী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে শুধুমাত্র পরীক্ষার ফি গ্রহণ করা হয়। একই কথা বললেন নাচোল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বাইরুল ইসলাম।

তবে এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ চেয়েছে শিক্ষার্থীরা।

এ ব্যাপারে  উপজেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার দুলাল উদ্দিন জানান, তিনি এরকম কোনো অভিযোগ পাননি । অভিযোগ পেলে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান তিনি।

Be the first to comment on "সরকারি নির্দেশ অমান্য করে নাচোলে বৃত্তিপ্রাপ্তদের কাছ থেকে টিউশন ফি আদায়"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.