তৃণমূল কর্মীরাই আওয়ামী লীগের প্রাণ: ওবায়দুল কাদের

প্রতিনিধি, বাগেরহাট: তৃণমূল কর্মীরাই আওয়ামী লীগের প্রাণ মন্তব্য করে দলটির সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এই নিবেদিত কর্মীরাই ওয়ান-ইলেভেনের উত্তাল সময়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে মুক্ত করে এনেছিল। সে সময় বসন্তের কোকিলদের রাজপথে দেখা যায়নি। কর্মীদের মূল্যায়ন না করলে আগামীতে দলের মনোনয়ন পাবেন না। পকেট কমিটি করে বসন্তের কোকিলদের দলে ঠাঁই দিলে তিনি যত বড় নেতাই হোন না কেন, দলে তার স্থান হবে না।

মঙ্গলবার দুপুরে বাগেরহাট খানজাহান আলী ডিগ্রি কলেজ মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিনিধি সভায় বক্তব্য রাখছেন ওবায়দুল কাদের।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. মোজাম্মেল হোসেন এমপির সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান এমপি, সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন, মীর শওকাত আলী বাদশা, তালুকদার আব্দুল খালেক ও হ্যাপী বড়াল। আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামরুজ্জামান টুকু, কেন্দ্রীয় নেতা এ কে এম এনামুল হক শামীম, এস এম কামাল হোসেন, এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন, বাগেরহাট পৌরসভার মেয়র খান হাবিবুর রহমান, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ, ছাত্রলীগ নেতা শারমিন সুলতানা লিলিসহ অন্যরা।

সভায় মন্ত্রী আরো বলেন, আওয়ামী লীগ শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠন করতে সার্চ কমিটির কাছে মঙ্গলবার সকালে পাঁচ জনের নাম পাঠিয়েছে। ঐ নাম থেকে কাউকে নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ না করা হলেও আমরা এর প্রতিবাদ করব না। মহামান্য রাষ্ট্রপতি যাকে উপযুক্ত মনে করে নির্বাচনার কমিশনার নিয়োগ দিবেন, আওয়ামী লীগ তাকেই সাদরে গ্রহণ করবে। নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দিয়ে বিএনপিকে অহেতুক জল না ঘোলা করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনেই হবে। আপনারাও ঐ নির্বাচনে অংশ নেবেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি সংলাপের রাস্তা আগেই বন্ধ করে দিয়েছে। তারপরও মহামান্য রাষ্ট্রপতি সকলের সঙ্গে সংলাপ করেছেন। সার্চ কমিটি হয়েছে, আওয়ামী লীগের কোনো লোক সার্চ কমিটির মেম্বার হয়নি। তারপরও বিএনপি মানি না মানব না বলে যাচ্ছে। ওরা ২০১৪ সালের নির্বাচনের পরও মানি না মানব না বলেছিল। তারপর শুরু করল পেট্রোলবোমা। ঘুমিয়ে থাকা শিশুকেও তারা পেট্রোল বোমা মেরে হত্যা করেছে।

বিএনপিকে পথহারা পথিক মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, তারা রাজপথে আন্দোলনে ব্যর্থ। বিএনপির সাথে এখন আর জনগণ নাই। তাই তারা আন্দোলন করতে সাহস পায় না। তারা নানা ভাবে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু কোনো কিছুতেই দেশের অগ্রযাত্রায় বাধা দিতে পারছে না।

মন্ত্রী পরে বাগেরহাট শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে শহীদ শেখ আবু নাসের ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার উদ্বোধন করেন এবং পুরস্কার বিতরণ করেন।

Be the first to comment on "তৃণমূল কর্মীরাই আওয়ামী লীগের প্রাণ: ওবায়দুল কাদের"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.