কাউখালীতে ছাত্রী নির্যাতনকারী বখাটে রাজু গ্রেফতার

রবিউল হাসান রবিন, কাউখালী (পিরোজপুর): কাউখালী কলেজের ছাত্রী মাকুল আক্তার মুনার ওপর হামলাকারী রাজু শেখকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে কাউখালীর দাশেরকাঠী গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয় বলে জানান কাউখালী থানার ওসি মনিরুজ্জামান।

আটক রাজু শেখ (২৬) ওই গ্রামের মোজাম্মেল শেখের ছেলে।

২৫ জানুয়ারি বখাটেদের নির্যাতনের শিকার হন মুনা (১৮)। বখাটেরা তাকে রড দিয়ে পিটিয়ে, শরীরের বিভিন্ন স্থানে কামড়ে গুরুতর জখম করলে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে চার দিন পর তাকে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে, হাসপাতালে সার্জারি বিভাগের এফ-৪ নম্বর ওয়ার্ডের মেঝেতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন মুনা। সাত দিন ধরে  কোনো খাবার মুখে নিতে পারছেন না তিনি। মুখে খাবার বা পানি নিলেই বমি হচ্ছে। তার শরীরে তীব্র যন্ত্রণা হচ্ছে। মুনার দিনমজুর বাবা চিকিৎসার খরচ যোগাড় করতে পারছেন না।

মুনার স্বজনদের কাছ থেকে জানা যায়,  রাজু  শেখ (২৬) তার বোনকে কলেজে যাওয়া-আসার পথে প্রায়ই উত্যক্ত করতেন। রাজু এক পর্যায়ে মুনাকে বিয়ের প্রস্তাব  দেন। সাড়া না পেয়ে ক্ষিপ্ত হন রাজু। ২৫ জানুয়ারি কলেজে যাওয়ার পথে রাজু মুনার পথ আগলে বিয়েতে রাজি না হলে মেরে ফেলবেন বলে হুমকি দেন। মুনা বিষয়টি কলেজের শিক্ষকদের জানালে শিক্ষকরা তাকে থানায় জিডি করার পরামর্শ দেন।

ওই দিনই থানায় গিয়ে জিডি করেন মুনা। বিকেলে বাড়িতে  ফেরার পথে রাজু ও তার চার-পাঁচজন সহযোগী মুনাকে কিল-ঘুষি মেরে মাথার চুল ধরে টানতে টানতে চুল ছিড়ে ফেলেন। পরে রড দিয়ে মুনাকে পেটান তারা। মুনা মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তার শরীরের বিভিন্ন স্থান ও গলা কামড়ে দেয় হামলাকারীরা।

হামলার পর মুনার বাবা আব্দুল মান্নান শেখ কাউখালী থানায় মামলা দায়ের করেন।

Be the first to comment on "কাউখালীতে ছাত্রী নির্যাতনকারী বখাটে রাজু গ্রেফতার"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.