পূর্ব সুন্দরবনে র‌্যাব-বনদস্যু বন্দুক যুদ্ধে বাহিনী প্রধান সামছু নিহত, আগ্নোয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

dav

জাহিবা হোসাইন, মোংলা (বাগেরহাট): পূর্ব সুন্দরবনের চাদপাই রেঞ্জের (মোংলার) মৃগামারী এলাকায় র‌্যাব-৬ ও বনদস্যু সামছু বাহিনীর মধ্যে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন বাহিনী প্রধান সামছু শেখ ওরফে কোপা সামছু (৩৫)। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তিনটি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র, ৩৬ রাউন্ড গুলি ও দুইটি ধারালো অস্ত্র।

বন্দুক যুদ্ধে নিহত বাহিনী প্রধান সামছু|

র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক খন্দকার রফিকুল ইসলাম জানান, নিয়মিত টহলের অংশ হিসেবে র‌্যাব সদস্যরা মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে বনের মৃগামারী এলাকায় টহল দিচ্ছিল। এ সময় বনদস্যু সামছু বাহিনী মৃগামারী সংলগ্ন সোনামুখী খালের মুখে অবস্থান নিয়ে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব।

আগে থেকে খালের মুখে অবস্থান নেয়া দস্যুরা অভিযানকারীদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে আত্মরক্ষারর্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। উভয়ের মধ্যে প্রায় এক ঘন্টাব্যাপী গুলিবিনিময়ের এক পর্যায়ে বাহিনী প্রধান সামছু গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে যায়। এ সময় বাহিনীর অন্য ছয় সদস্য দ্রুত বনের গহীনে পালিয়ে যায়। পরে গুলিবিদ্ধ সামছুকে মোংলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পর কর্তব্যরত ডাক্তার মো: শাহিন তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি একনালা বন্দুক, দুইটি দেশি একনালা বন্দুক, ৩৬ রাউন্ড তাজা গুলি ও দুইটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করে র‌্যাব। র‌্যাব আরো জানায়, গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সামছুকে জয়মনিরঘোল এলাকায় আনা হলে সেখানাকার জেলেরা বনদস্যু বাহিনী প্রধান সামছু বলে তাকে সনাক্ত করে। নিহত দস্যুর লাশ ও অস্ত্র মোংলা থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে। পুলিশে হন্তান্তরের পর দুপুরেই লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Be the first to comment on "পূর্ব সুন্দরবনে র‌্যাব-বনদস্যু বন্দুক যুদ্ধে বাহিনী প্রধান সামছু নিহত, আগ্নোয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.