আত্রাই আহসানগঞ্জে স্টেশনে সকল আন্তঃনগর ট্রেনের বিরতির দাবিতে মানববন্ধন

একেএম কামালউদ্দিন টগর, আত্রাই (নওগাঁ): নওগাঁর আত্রাই আহসানগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনে উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের উপস্থিতিতে মানববন্ধনকারীদের অনুরোধে দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনটি ৩০ মিনিট যাত্রা বিরতি করে। শুক্রবার সকাল ১১-৪৫ মিনিট পর্যন্ত আত্রাইয়ের আহসানগঞ্জ রেল স্টেশনে সকল আন্তঃনগর ট্রেন বিরতির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।
আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রা বিরতির দাবিতে পূর্বেও কয়েকবার মানববন্ধন পালন করা হয়েছে। পরে নওগাঁ জেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত সদস্য ও আওয়ামী লীগের নেতা আব্দুল মজিদ মিঠু মানববন্ধনে অংশ নিয়ে বলেন, আত্রাইবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির সাথে আমিও একমত।  এ বিরতির দাবিতে গত অক্টোবর থেকে ফেব্রুয়ারি ৯ তারিখ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে বিভিন্ন কর্মসূচিসহ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

Human chain Atrai

আত্রাই আহসানগঞ্জে স্টেশনে সকল আন্তঃনগর ট্রেনের বিরতির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করা হয়।

এদিকে আত্রাইয়ে ঢাকাগামী সকল আন্তঃনগর ট্রেনের বিরতির (ষ্টপেজ) দাবি কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন মানববন্ধন পালন করা হবে বলে কর্মসূচিতে যোগদানকারীরা জানান। জানা যায়, বিট্রিশ শাসনামলে নির্মিত বৃহত্তম আত্রাইয়ে একমাত্র আহসানগঞ্জ রেল-স্টেশনের উপর দিয়ে প্রতিদিন উত্তরবঙ্গের দিনাজপুর-নীলফামারী-লালমনীহাটের ঢাকাগামী ৫টি আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করলেও মাত্র একটি আন্তঃনগর নীল সাগর এক্সপ্রেস ছাড়া ঢাকাগামী অন্য কোন ট্রেনের বিরতি এখানে নাই। তাও আবার গভীর রাতে এই বিরতির সময় (২ টা ৪০ মিনিট)। আবার আসনসংখ্যা বরাদ্দ রয়েছে প্রয়োজনের তুলনায় একেবারে অপ্রতুল। ফলে ঢাকাগামী যাত্রীদের অনেক দুর্ভোগের শিকার হতে হয়।

ঢাকাগামী আন্তঃনগর নীল সাগর এক্সপ্রেস ছাড়াও আত্রাই (আহসানগঞ্জ) ষ্টেশনের উপর দিয়ে প্রতিদিন দ্রুতযান এক্সপ্রেস, লালমনি এক্সপ্রেস, রংপুর এক্সপ্রেস এবং দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একতা এক্সপ্রেস নামে আরও চারটি আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করে। অথচ এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি সত্বেও এসব আন্ত:নগর ট্রেনের বিরতি কার্যকর না হওয়ায় একদিকে যাত্রীরা দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন, অন্যদিকে সরকার প্রচুর পরিমান রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

গত ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসেও একই দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। কিন্ত সে সময় নীলফামারী থেকে ছেড়ে আসা নীলসাগর এক্সপ্রেস ছাড়া অন্যান্য ট্রেন মিটারগ্রেজে চলার অজুহাতে এ ষ্টেশনে ষ্টপেজ কার্যকর হয়নি। গত ২০১৬ সালের ২ সেপ্টেম্বর থেকে দিনাজপুর ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী দ্রুতযান ও একতা এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি ব্রডগ্রেজ লাইন দিয়ে চলাচল শুরু করেছে। ফলে এখন এ স্টেশনে (আহসানগঞ্জ) যাত্রা বিরতিতে প্লাটফরম ব্যবহারে আর কোন সমস্যা নেই। এ বিষয়ে শুক্রবার সকাল ১১টায় আত্রাই মোল্লা আজাদ বিশ^বিদ্যালয় কলেজের প্রভাষক মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে কর্মসূচিকে আরো দীর্ঘতম ও সকল আন্তঃনগর ট্রেনের স্টপেজের দাবি আদায়ের লক্ষে যাত্রীকল্যাণ কমিটি নামক একটি কমিটি গঠন করা হয়। উক্ত কমিটিতে নওগাঁ জেলা পরিষদের নব-নির্বচিত সদস্য বিশিষ্ট সমাজসেবক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আব্দুল মজিদ মিঠুকে আহ্বায়ক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, সমাজসেবক আত্রাই টোলমুক্ত মাছ বাজার সমিতির সভাপতি বাবুল আকন্দ ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোফাজ্জল হোসেন মোফা, আত্রাই ভর-তেঁতুলিয়া গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক কাজী মতিনুর রহমান মামুনকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে  নয় সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।

এ বিষয়ে আত্রাই উপজেলার সাহেবগঞ্জ বাজার ও দোকান মালিক সমিতির সভাপতি ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম বাবু জানান, আমাদের আত্রাই আহসানগঞ্জ রেলস্টেশনে আন্তঃনগর ট্রেনের ষ্টপেজ দেয়া হলে আত্রাই, রাণীনগর, বাগমারা, সিংড়া, নলডাঙ্গা, নন্দিগ্রাম উপজেলাসহ আশপাশের উপজেলার মানুষের অনেক উপকার হবে। পার্শ^বর্তী উপজেলার মানুষের কথা ও রাজস্ব আদায়ের স্বার্থে আত্রাই আহসানগঞ্জ ষ্টেশনে ঢাকাগামী সকল আন্তঃনগর ট্রেনের স্টপেজের জোর দাবি জানান তিনি।

Be the first to comment on "আত্রাই আহসানগঞ্জে স্টেশনে সকল আন্তঃনগর ট্রেনের বিরতির দাবিতে মানববন্ধন"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.