চিতলমারী হাসপাতালের ওটি উদ্বোধনে স্বস্তি রোগীদের

বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অপারেশন থিয়েটার অবশেষে চালু হয়েছে। সোমবার দুপুরে বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা: অরুন চন্দ্র মন্ডল নিজেই শিবপুর গ্রামের দরিদ্র দেলোয়ার হাওলাদারের স্ত্রী শারমিন বেগমের সিজার করে ওটির উদ্বোধন করেন। শারমিন বেগমের একটি ছেলে সন্তান হয়।

Inaguration of operation theatere aat Chtalmari in Bagerhat

চিতলমারী হাসপাতালের ওটি উদ্বোধনে স্বস্তি রোগীদের।

প্রায় দুই লক্ষ লোক অধ্যুষিত চিতলমারী উপজেলার ৩১ শয্যার সরকারি প্রধান এ হাসপাতালে চিকিৎসক সংকট এবং প্রয়োজনীয় উপকরণ না থাকায় এতদিন যাবৎ অপারেশন থিয়েটার চালু করা যায়নি। ফলে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সাধারণ মানুষের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। সিজারসহ অপারেশনের রোগীদের বাগেরহাট, খুলনা, গোপালগঞ্জের হাসপাতালে পাঠানো হতো। কেউ কেউ বাধ্য হয়ে বেসরকারি ক্লিনিক বা হাসপাতালের শরণাপন্ন হতেন। এ ক্ষেত্রে হয়রানী, কালক্ষেপণের পাশাপাশি অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় করতে হতো। হতদরিদ্ররা পরতেন মহাবিপাকে। অনাকাঙ্খিত মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে অনেক।

এ অবস্থায় চিতলমারী হাসপাতালের ওটি চালু হওয়ায় সকল স্তরের মানুষ স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। ওটি উদ্বোধনের সময় চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ডা: আলমগীর হোসেন, ডা: মামুন, ডা: সজল, অজ্ঞানের চিকিৎসক ডা: এস.এম সাইফুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। সিভিল সার্জন অরুণ চন্দ্র মন্ডল জানন, স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগে অজ্ঞানের চিকিৎসক পদায়ন করায় এ হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটার চালু করা সম্ভব হয়েছে।

Be the first to comment on "চিতলমারী হাসপাতালের ওটি উদ্বোধনে স্বস্তি রোগীদের"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.