মৃত সন্তানের জীবিত হওয়ার আশায় টানা ৩৮ দিন কবরে কাটালেন বাবা

মৃত সন্তান আবার জীবিত হয়ে উঠবে এমন আশায় টানা ৩৮ দিন সন্তানের কবর পাহারা দিয়েছেন বাবা। ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের নেলোর জেলার পেতলুরু গ্রামের একটি খ্রীস্টান কবরস্তানে থুপ্পাকুলু রামু (৫৬) নামের ওই ব্যক্তি এক তান্ত্রিকের পরামর্শে সার্বক্ষণিক সন্তানের কবর পাহারা দেন।

ওই তান্ত্রিক তাকে বলেছিল সন্তানকে পুনরায় জীবিত করার এটাই একমাত্র উপায়। তান্ত্রিককে তিনি প্রায় ৭ লাখ রুপি দেন।

স্থানীয় পুলিশ এই আজগুবি ঘটনা জানার পর কবরস্তানে গিয়ে রামুকে বুঝিয়ে বাড়ি ফেরায়। তবে রামু এখনো বিশ্বাস করেন যে, তার সন্তানকে আবার বাঁচিয়ে তোলার ক্ষমতা ওই তান্ত্রিকের রয়েছে।

সোয়াইন ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে গত মাসে রামুর ছেলে টি শ্রীনাবাসুলু (২৬) কাড়াপা জেলার কোদুরু শহরে মারা যান। ২০১৪ সাল থেকে শ্রীনিবাস কুয়েতের একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। মারা যাবার তিন মাস আগে তিনি দেশে আসেন। শ্রীনিবাস পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি, রোজগারের জন্য দেশে এসে একটি অটোরিকশা কিনেছিলেন তিনি।

অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে একটি সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে মারা যান তিনি।

পুলিশ বলেছে, ওই তান্ত্রিক রামুকে ৪১ দিন কবর পাহারা দেওয়ার পরামর্শ দেয়। তবে এ ঘটনায় রামু তান্ত্রিকের বিরুদ্ধে কোনো মামলা করতে চাননি।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

 

 

 

Be the first to comment on "মৃত সন্তানের জীবিত হওয়ার আশায় টানা ৩৮ দিন কবরে কাটালেন বাবা"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.