আ. লীগের অঙ্গসংগঠনের কেউ রক্তপাত করলে হাত কেটে ফেলা হবে, সম্মেলনে ভূমিমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি

স্বপন কুমার কুন্ডু, ঈশ্বরদী (পাবনা): ‘আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীর হাতে কোনো সদস্যের রক্তপাত হলে তার হাত কেটে ফেলা হবে।’ বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিকলীগ ঈশ্বরদী ও পাকশী শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এমপি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্য একথা বলেছেন।

land minister shamsur rahman sharif
সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন ভূমিমন্ত্রী।

শনিবার বিকেলে ঈশ্বরদী শাখার পক্ষ থেকে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সম্মেলনে উদ্বোধক হিসাবে শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এ্যাড. হুমায়ন কবীর, প্রধান বক্তা হিসাবে কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আলহাজ হাবীবুর রহমান আকন্দ বক্তব্য দেন।  বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ডা. আব্দুস সাত্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক হায়দার আলী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ওয়ালী খান, আওয়ামী লীগ সভাপতি আনিছুন্নবী বিশ্বাস, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ মিন্টু, গোলাম মোস্তফা চান্না, এম রশিদুল্লাহ, হাবিবুল ইসলাম হব্বুল, মাহজেবিন শিরিন পিয়া, শ্রমিক লীগ নেতা জাহাঙ্গির আলমসহ অন্যরা।

আবু তালেব মুন্সি সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ আরো বলেন, পাকশী, ঈশ্বরদী ও মুলাডুলিতে ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগের কর্মীর হাত কেটে নিয়ে আওয়ামী লীগ কর্মীরা উল্লাস করেছে।  ঈশ্বরদী ও পাকশীতে গুন্ডামি, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজি চলতে দেওয়া যাবে না। মন্ত্রী আরো বলেন, পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা এখনো এদেশে রয়ে গেছে। স্বাধীনতা ও গনতন্ত্র বিরোধী বিএনপি-জামায়াত চক্র ঈশ্বরদীতে শেখ হাসিনার গাড়িতে গুলিবর্ষণসহ ১৯ বার হত্যার জন্য হামলা চালিয়েছে। ওই হায়েনাদের ছোবল থেকে শেখ হাসিনাকে রক্ষা করতে শ্রমিক লীগকে সজাগ থাকতে হবে। দেশে সব কিছুর বিস্তার ঘটলেও রেললাইন সংকুচিত হয়েছে। বেসরকারি খাতে ট্রেন চালাতে দেওয়া যাবে না। রেলকে রক্ষা করতে না পারলে শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষা হবে না।

সম্মেলনে রফিকুল ইসলাম স্বপনকে ঈশ্বরদী শাখার সভাপতি ও আসলাম উদ্দিন খান মিলনকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।